• শুক্রবার ৭ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ ২৩শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

    শিরোনাম

    নদী ভাঙন কবলিত এলাকায় মাশরাফী

    স্বপ্নচাষ ডেস্ক

    ০১ আগস্ট ২০২০ ৮:২৯ অপরাহ্ণ

    নদী ভাঙন কবলিত এলাকায় মাশরাফী

    ফাইল ছবি

    নড়াইল ২ আসনের সংসদ সদস্য সাবেক টাইগার অধিনায়ক মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা নদী ভাঙন কবলিত এলাকায় পরিদর্শন করেছেন। নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার নদী ভাঙ্গন কবলিত মল্লিকপুর এলাকায় যান তিনি।

    করোনা সংক্রমণ থেকে মুক্তি লাভের পর নির্ধারিত সময় আইসোলেশনে কাটিয়ে ঢাকা থেকে নড়াইলে আসেন মাশরাফী। সরেজমিন নিজ এলাকার ভাঙন পরিস্থিতি ও ক্ষতিগ্রস্তদের খোঁজ খবর নেয়ার মধ্য দিয়ে আবার শুরু হলো এমপি মাশরাফীর নিরন্তর ছুটে চলা।

    এদিন তিনি মধুমতী পাড়ের ভাঙ্গনপীড়িতদের দুর্দশা দেখতে সকাল ১০টার দিকে মল্লিকপুর পৌঁছান। মাশরাফীর আগমনে সমবেত জনতার শারীরিক দূরত্ব নিশ্চিতে সেখানে দায়িত্বরত স্বেচ্ছাসেবকদের যথেষ্ট বেগ পেতে হয়। প্রাণের মানুষকে কাছে পেয়ে নিজেদের দুর্দশার কথা জানাতে গিয়ে এ সময় অনেকেই আবেগ আপ্লুত হয়ে পড়েন। মাশরাফী সম্বলহারা মানুষের কথা শোনেন, তাদের পাশে থাকার আশ্বাস দেন, ভাঙ্গন প্রতিরক্ষায় দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দেন।

    এ সময় উপস্থিত ছিলেন পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্মকর্তারা। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সরকারি বিভাগের কর্মকর্তা, জন প্রতিনিধি, আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

    মধুমতীর ভাঙনের কবলে লোহাগড়া উপজেলার জয়পুর, লোহাগড়া, শালনগর, কোটাকোলসহ অন্তত ছয় ইউনিয়নব্যাপি ভাঙ্গন অব্যাহত রয়েছে। সেখান থেকে ফিরে মাশরাফী লোহাগড়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের কক্ষে সীমিত পরিসরে এক মত বিনিময়ে মিলিত হন, সেখানে গ্রাম পুলিশদের দাবির প্রেক্ষিতে মাশরাফী তাদের পাওনা পরিশোধেও ব্যবস্থা নেন।

    স্বপ্নচাষ/ডি কস্টা

    বিষয় :

    Facebook Comments

    বাংলাদেশ সময়: ৮:২৯ অপরাহ্ণ | শনিবার, ০১ আগস্ট ২০২০

    swapnochash.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
    ১০১১১২১৩১৪
    ১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
    ২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
    ২৯৩০৩১  

    সম্পাদক : এনায়েত করিম

    সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: গুরুদাসপুর, নাটোর-৬৪৩০
    ফোন : ০১৫৫৮১৪৫৫২৪ email : swapnochash@gmail.com

    ©- 2020 স্বপ্নচাষ.কম কর্তৃক সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত।